যে কারণে ফিফা সভাপতিকে ধন্যবাদ জানালেন নোরা ফাতেহি!

আজ নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলে নোরা ফাতেহি ফিফা সভাপতি জান্নি ইনফান্তিনোর সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে জানান, পর্তুগাল বনাম উরুগুয়ের ম্যাচ দেখার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এটিই নোরা ফাতেহির প্রথম স্টেডিয়ামে বসে দেখা ম্যাচ।

নোরা ফাতেহি নিজেই সোশ্যাল হ্যান্ডেলে বলছেন, ‘আমাকে পর্তুগাল বনাম উরুগুয়ের ম্যাচটি দেখার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য জান্নি ইনফান্তিনোকে ধন্যবাদ। আপনি এবং আপনার স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে দারুণ লেগেছে আমার। এটাই স্টেডিয়ামে বসে দেখা আমার প্রথম ফুটবল ম্যাচ। দারুণ একটি অভিজ্ঞতা।’

এদিকে মরক্কো বংশোদ্ভূত নোরা ফাতেহির দেশ অবিশ্বাস্যভাবে ২০১০ সালের বিশ্বকাপজয়ী স্পেন দলকে টাইব্রেকারে হারিয়ে দেয়। এতে রীতিমতো বিস্ময়ের হাওয়া বয়ে যায় ফুটবল দুনিয়ায়। ইনস্টাগ্রামে নিজের আনন্দ প্রকাশে কোনো কার্পণ্য় করেননি নোরা। বেলি ডান্সের জন্য এমনিতে গোটা শোবিজ দুনিয়ার নজর কেড়েছেন তিনি। বড় পর্দা থেকে রিয়ালিটি শো―সর্বত্রই সুপারহিট তাঁর ডান্স পারফরম্যান্স।

যত দিন যাচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় বাড়ছে তাঁর অনুরাগীর সংখ্যাও। আর মরক্কোর জয়ের কারণে ফের নোরার বেলি ডান্স দেখার সুযোগ পেলেন অনুরাগীরা।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে স্পেনের বিরুদ্ধে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে মরক্কো। বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে অনবদ্য পারফর্ম করে পেনাল্টি শ্যুটআউটে জয় পান হাকিমিরা। প্রথমবার বিশ্বকাপের শেষ আটে পৌঁছে নজির গড়েন তাঁরা। মঙ্গলবার মরক্কো জিততেই আনন্দে আত্মহারা হয়ে ওঠেন নোরা। বলে দেন, ‘জানতাম, মরক্কোই জিতবে।’

আজ নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলে নোরা ফাতেহি ফিফা সভাপতি জান্নি ইনফান্তিনোর সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে জানান, পর্তুগাল বনাম উরুগুয়ের ম্যাচ দেখার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এটিই নোরা ফাতেহির প্রথম স্টেডিয়ামে বসে দেখা ম্যাচ।

নোরা ফাতেহি নিজেই সোশ্যাল হ্যান্ডেলে বলছেন, ‘আমাকে পর্তুগাল বনাম উরুগুয়ের ম্যাচটি দেখার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য জান্নি ইনফান্তিনোকে ধন্যবাদ। আপনি এবং আপনার স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে দারুণ লেগেছে আমার। এটাই স্টেডিয়ামে বসে দেখা আমার প্রথম ফুটবল ম্যাচ। দারুণ একটি অভিজ্ঞতা।’

এদিকে মরক্কো বংশোদ্ভূত নোরা ফাতেহির দেশ অবিশ্বাস্যভাবে ২০১০ সালের বিশ্বকাপজয়ী স্পেন দলকে টাইব্রেকারে হারিয়ে দেয়। এতে রীতিমতো বিস্ময়ের হাওয়া বয়ে যায় ফুটবল দুনিয়ায়। ইনস্টাগ্রামে নিজের আনন্দ প্রকাশে কোনো কার্পণ্য় করেননি নোরা। বেলি ডান্সের জন্য এমনিতে গোটা শোবিজ দুনিয়ার নজর কেড়েছেন তিনি। বড় পর্দা থেকে রিয়ালিটি শো―সর্বত্রই সুপারহিট তাঁর ডান্স পারফরম্যান্স।

যত দিন যাচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় বাড়ছে তাঁর অনুরাগীর সংখ্যাও। আর মরক্কোর জয়ের কারণে ফের নোরার বেলি ডান্স দেখার সুযোগ পেলেন অনুরাগীরা।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে স্পেনের বিরুদ্ধে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে মরক্কো। বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে অনবদ্য পারফর্ম করে পেনাল্টি শ্যুটআউটে জয় পান হাকিমিরা। প্রথমবার বিশ্বকাপের শেষ আটে পৌঁছে নজির গড়েন তাঁরা। মঙ্গলবার মরক্কো জিততেই আনন্দে আত্মহারা হয়ে ওঠেন নোরা। বলে দেন, ‘জানতাম, মরক্কোই জিতবে।’